যে ভাবে Factory Reset করলে আপনার ফোন হবে নতুনের মত সুপার

Factory Reset: আমরা যখন একটা ফোন ১ থেকে২বছর ব্যবহার করি, তখন আমাদের পড়ে আননেসেসারি পরিমান এর ডাটা তৈরি হয় ।সেই সাথে সফটওয়্যার ইন্টার্নাল গত কারণেই ফোন টা অনেক ভেশি স্লো হয়ে যায় ।এক্ষেত্রে আপনি চাইলে আপনার ফোনটা কে একদম ক্লিন করে, নতুনের মতো করে ফেলতে পারেন। আইফোন কেনার সময় আপনার ফোনটা যেরকম ছিল, সেরকম পাস করে ফেলতে পারেন।

যে ভাবে Factory Reset করলে আপনার ফোন হবে নতুনের মত সুপার ?

আপনার ফোনটা কে কিসে প্রসেস, আপনাদেরকে দেখায় তার আগে বলছি এরকম ইন্টারেস্টিং পোস্ট  প্রতিদিনই আমাদের ওয়েব সাইডে পাবেন।

প্রথমে আপনাকে আপনার ফোনে থাকা সকল ছবি এবং ভিডিও কপি করে আপনার পিসিতে রেখে দিতে হবে। যাতে পরবর্তীতে সেগুলো থেকে ব্যাকআপ পাওয়া যায়।

fhone

তারপরে আপনার ফোনে থাকা সিম কার্ড এবং মেমোরি কার্ড এক্সটার্নাল মেমোরি কার্ড করে ফেলতে হবে।

প্রথমে আপনাকে চলে যেতে হবে আপনার ফোনের সেটিংস এ। সেটিংস থেকে চলে যেতে হবে অ্যাডিশনাল সেটিংস এ। আর অ্যাডিশনাল সেটিংস একদম নিচের দিকে দেখতে পারবেন, ব্যাকাপ এ্যান্ড রিসেট অপশন রয়েছে।

 মোবাইল রিসেট দিলে কি হয়

এক্ষেত্রে আপনাদেরকে একটু বলে দিচ্ছি, এখানে আমরা অ্যাডিশনাল সেটিংস থেকে ব্যাকাপ এ্যান্ড রিসেট অপশন টা পেয়েছি। আমাদের ফোনে কি দেখাচ্ছে সেই ভাবে আপনাদের ফোনে নাও থাকতে পারে। তাই আপনার সেটিং থেকে ব্যাকাপ এ্যান্ড রিসেট অপশনটি খুজে পাবেন। সেটিংস   মধ্যে খুঁজে পেতে পারেন।

আবার অনেক সময় খুঁজে পেতে পারেন না।  তবে আপনার সেটিংস ফাস্ট হবে।  এটা আমরা মোটামুটি সবাই জানি, কিন্তু চলে যাবে  আপনার গ্যালারিতে । তারপরে হচ্ছে আপনাদে্র জন্য সেটিংস অ্যাপে সব  চলে যাবে। আর এটা আমাদের জন্য বড় একটা বিপত্তিকর কারণ।

আপনি ভুল বোঝবেন না, আপনাদের ফোনের সেটিংস থেকে কোন কিছুই যাবে না। এত সকল কল লিস্ট যা কিছু আছে সব কিছু কিন্তু ঠিক রেখে, আপনাকে একটা রিস্টোর ফ্যাক্টরি দিবে।

এই প্রচেষ্টায় দেখায় প্রথমে যে কাজটা করব সেটা হচ্ছে, আমাদের ফোনের সমস্ত ডাটাগুলোকে ব্যাকআপে রেখে দিব। যাতে পরবর্তীতে রিস্টোর ফ্যাক্টরি করার পর সেগুলো কি আবার রিস্টোর করতে পারি। তবে আপনি ব্যাকআপ রিস্টোর বাটনে ক্লিক করবেন।

রিসেট ট্যাবলেট  এর কাজ কি

তারপর একদম নিচের দিকে থাকা ক্রিয়েট নিউ ব্যাকআপ এ ক্লিক করতে হবে। তারপরে আপনার সামনে দেখাবে কি কি জিনিস ব্যাকআপে থাকবে।  আর মনে হচ্ছে কন্টাক্ট নাম্বার মেসেজ কল হিস্টোরি সিস্টেম থেকে এলাম রিংটোন সেটিং সমস্ত পরিবর্তন ইন্সটল করা সমস্ত অ্যাপসগুলোকে আপনি ব্যাকআপ রাখতে পারবেন।

তার মানে আপনি রিস্টোর ফ্যাক্টরি তেলেফোন সুপারফাস্ট হারাবেন না। যাই হোক এখন আপনি স্টার্ট ব্যাকআপ এ ক্লিক করবেন এবং দুই থেকে তিন মিনিট একটু বেশি সময় লাগতে পারে । সময় নিয়ে সম্পূর্ণ ফাইলগুলো ব্যাকআপ হয়ে যাবে। পুরোপুরি শেষ হওয়ার পর, এবার আপনি চারিদিকে রিস্টোর ফ্যাক্টরি করবেন। তাই আপনাদেরকে বলছি এই যে পোস্ট দেখছেন সেগুলো হয়তো বা আপনার অনেক বেশি কাজে লাগছে বা উপকার হচ্ছে ।

এই যদি পোস্ট আপনি আপনার ফেসবুকের টাইমলাইনে শেয়ার করে দেন তাহলে আপনার ফ্রেন্ডলিস্টে থাকা বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন তাদের অনেক বেশি উপকার হতে পারে । সেই সাথে আমরা যে কষ্ট করে পোস্ট বানাচ্ছি সেটা কিন্তু একটা অন্যতম প্রবক্তা কে রিকোয়েস্ট করবে। পোস্টটি আপনার ফেসবুকের টাইমলাইনে শেয়ার করে করবেন।

স্যামসাং ফোন রিসেট দেওয়ার নিয়ম

আপনি সেটিংস থেকে এডিশনাল সেটিং, তারপরে ব্যাকআপ এর নিচে ,  তার পুড়ে একদম নিচের দিকে থাকা রিসেট ফ্যাক্টরি সেটিং এ ক্লিক করবেন।

দুই নম্বরে আছে, আর অল অ্যাপ ডাটা এন্ড ডিলিট অ্যাপস নামে অফ অন কি আছে এটাতে ক্লিক করতে হবে। আর ডাটা নামে অফ আর্টিস্টিক দুইবার আসবে আর এতে দুইবার ক্লিক করতে হবে । তারপরে শুরু হয়ে যাবে রিস্টোর ফ্যাক্টরি  অটোমেটিক কাজ।  এতে আপনার কিছু করতে হবে না।

আর  সময় লাগতে পারে৫ থেকে ১০ মিনিট পর্যন্ত । এটা বেসিক্যালি আপনার ফোনের ক্যাপাসিটি উপর ডিপেন্ড করে  থাকে । ওকে, এবার মোদি স্টিল ফ্যাক্টরি কাজ শেষ।  এবার বাজার থেকে ফোন কিনে আনার পর ফোনটিকে অন করতে গেলে যেভাবে ফোনটিকে সেটআপ করতে হয়। ঠিক সেইভাবেই মানে, নতুনের মত করে আবার ফোনটিকে সেটআপ করতে হবে।

  • Backup and reset কি

  • প্রথমে ল্যাঙ্গুয়েজ সিলেক্ট করে কন্টিনুয়ে ক্লিক করতে হবে ।
  • তারপর রিজিওনাল থেকে বাংলাদেশ সিলেক্ট করে, নেক্সট এ ক্লিক করতে হবে। তারপর কন্টিনুয়ে বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • এভাবে একটার পর একটা অপশন আসবে। সে গুলোকে একটার পর একটা সিলেক্ট করে ফাইনালি আপনার ফোনটা কে ওপেন করতে হব। এখন দেখেন আপনার ফোন সুপারফাস্ট হয়ে গেছে। কিন্তু কিছুই নেই। ডায়াল লিস্ট মেসেজ বা কোন প্রকার অ্যাপস। সে ক্ষেত্রে আপনি সবকিছু আবার নতুন করে ব্যাকআপ  করবেন।
  • আর এজন্য আবার নতুন করে সেটিংস থেকে ,অ্যাডিশনাল সেটিংস, তারপরে আবারো ব্যাকআপ ও রিস্টোর , তারপরে আপনার সামনে আসবে ব্যাকআপ নামে একটা ফাইল।  প্রথমে ব্যাকআপ দিয়েছিলাম সে ফাইলের উপর ক্লিক করতে হবে তারপরে দেখাবে  আপনি কি কি জিনিস ব্যাকআপ করতে যাচ্ছেন দেন  আপনি স্টার্ট হিস্টরি ক্লিক দিবেন।
  • এখন থেকে কিছুক্ষণ সময় নিয়ে ধীরে ধীরে আপনার সমস্ত ফাইলগুলা কিন্তু রিস্টোর হবে । আপনার সবকিছু কিন্তু রিস্টোর হয়ে গেছে।  এবার যদি আপনি ডায়াল এ ক্লিক করেন, তাহলে  দেখবেন  ডায়াল লিস্টে যা কিছু ছিল রিস্টোর দেওয়ার আগ পর্যন্ত সবকিছু কিন্তু এখন আবার নতুন করে দেখাচ্ছে।  মেসেজে গেলে দেখতে পাচ্ছেন সমস্ত।

মোবাইল ফ্যাক্টরি রিসেট

এগুলো কিন্তু দেখাচ্ছে আবার অ্যাপস এগুলো দেখতে পাচ্ছেন।  পূর্বের ইন্সটল করা যতগুলো আছে সবগুলো কিন্তু আবারও দেখাচ্ছে।  তার মানে যে প্রত্যেকটা সেটিং করা ছিল সবই ঠিক আছে।  আর এভাবে কিন্তু সবকিছু ঠিক রেখে আমরা আমাদের স্মার্ট ফোনটাকে একদম নতুনের মত পাস করে ফেলতে পারি।

পোস্ট টি আপনাদের কেমন লাগলো সেটা অবশ্যই আমাকে নিচে কমেন্ট করে জানাবতি।  যদি পোস্ট টি  ভাল লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই একটি লাইক দিবেন।  সেই সাথে আবার ফেসবুকের টাইমলাইনে শেয়ার করে দিবেন।   সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ।

Add a Comment

Your email address will not be published.